Home আন্তর্জাতিক ফিলিস্তিন সংকটের যে কোন সুরাহা ট্রাম্পের মেয়াদকালে অসম্ভব

ফিলিস্তিন সংকটের যে কোন সুরাহা ট্রাম্পের মেয়াদকালে অসম্ভব

0
SHARE

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়াদকালে ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংকটের কোনো সুরাহা অসম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন ইসরায়েলের পার্লামেন্ট নেসেটের আরব সদস্য আহমাদ তাইবি।

আহমাদ তাইবি এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ট্রাম্প যখন ক্ষমতায় আসেন তখন কোনো সমাধান দৃশ্যপটে ছিল না। আর তিনি ক্ষমতা নেওয়ার পর সংঘাতের সমাধান অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এই আইনপ্রণেতা বলেন, ট্রাম্প এবং তাঁর সহযোগীরা জেরুজালেম এবং ইসরায়েলের অবৈধ বসতি নিয়ে দীর্ঘদিনের মার্কিন নীতি থেকে সরে এসেছেন। আর মার্কিন প্রেসিডেন্টের সিদ্ধান্ত জেরুজালেম নিয়ে ইসরায়েলের নীতিরই অনুসরণ। ফলে তাঁর মেয়াদকালে কোনো সমাধান সম্ভব নয়।

আভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে নেতানিয়াহু ব্যাপক চাপে রয়েছেন উল্লেখ করে আহমাদ তাইবি বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত চলছে। দোষী প্রমাণিত হলে তাঁর পদই ঝুঁকিতে পড়বে। এমন পরিস্থিতিতে জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিলেন ট্রাম্প। এই ঘোষণা নেতানিয়াহুর জন্য ট্রাম্পের উপহার হিসেবে দেখা যেতেই পারে।

একটি গুজব ছড়িয়ে পড়েছে, যা শতাব্দীর সেরা চুক্তি (ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি) নামে অভিহিত হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, সৌদি আরব ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষকে চাপ দিচ্ছে, জেরুসালেম বাদে গাজা এবং পশ্চিম তীরের অংশবিশেষ নিয়ে ফিলিস্তিন রাষ্ট্র হবে। কিন্তু তা উড়িয়ে দিচ্ছেন এই আরব আইনপ্রণেতা।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম গার্ডিয়ান জানিয়েছে, জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে ট্রাম্পের ঘোষণার পর থেকে ইসরায়েল অধিকৃত এলাকায় মার্কিন অর্থায়নপুষ্ট এনজিওগুলো বয়কটের মুখে পড়েছে। ফিলিস্তিনি এনজিওগুলোকে চাপ দেওয়া হচ্ছে মার্কিন অর্থ ফেরত দেওয়ার জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here