Home রাজনীতি বিজয়ী হওয়ায় মহাথির মুহাম্মদকে অভিনন্দন জানিয়েছে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ

বিজয়ী হওয়ায় মহাথির মুহাম্মদকে অভিনন্দন জানিয়েছে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ

গতকাল মালয়েশিয়ার জাতীয় নির্বাচনে দেশটির সাবেক জনপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী মহাথির মুহাম্মদ সমর্থিত দল পাকাতান হারাপান (এলায়েন্স অব হোপ) নিরংকুশ বিজয় লাভ করায় অভিনন্দন জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর সভাপতি আল্লামা আব্দুল মুমিন শায়েখে ইমামবাড়ি ও মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী। আজ (১০ মে) বৃহস্পতিবার সংবাদপত্রে প্রেরিত এক বার্তায় এই অভিনন্দনের কথা জানান জমিয়ত শীর্ষ নেতৃদ্বয়।

বার্তায় জমিয়ত সভাপতি ও মহাসচিব বলেন, মহাথির মুহাম্মদের সততা, দেশপ্রেম, উন্নত মেধা, বিচক্ষণতা এবং ইসলামী মূল্যবোধ ও মুসলিম উম্মাহ’র প্রতি আন্তরিকতা প্রশ্নাতীত। এর আগে তিনি ১৯৮১ সাল থেকে ২০০৩ ইং সাল পর্যন্ত একটানা ২২ বছর মালয়েশিয়া শাসন করে দেশটিকে দরিদ্রতা থেকে উন্নিত করে সমৃদ্ধির উচ্চাসনে নিয়ে পৌঁছান। সেই সময়ে তিনি শুধু মালয়েশিয়ার উন্নয়নেই মনোযোগী ছিলেন না, বরং মুসলিম বিশ্বের ভ্রাতৃত্বের বন্ধন এবং ওআইসি’র ভূমিকা জোরালো করতেও পরিশ্রম করে গেছেন। তিনি সবসময় মুসলমানদের উন্নত ও গবেষাণাধর্মী শিক্ষার্জন এবং মেধা ও জ্ঞানের ব্যবহার বৃদ্ধির প্রতি গুরুত্ব দিতেন বেশি। তিনি বলতেন, মুসলমানদের এত সম্পদ ও ভূখন্ড আছে যে, তারা যদি মেধা খরচ করে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশ শাসন করতে পারে, তাহলে সারা বিশ্বে তাদের নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ করার শক্তি কারোর থাকতো না।

জমিয়ত নেতৃদ্বয় বলেন, ড. মহাথির মুহাম্মদ মালয়েশিয়ার দীর্ঘ দিনের একজন সফল ও জনপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী ছলেন। তিনি ২০০৩ সালে স্বেচ্ছায় উত্তরসুরির হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করে অবসরে যান। প্রায় ১৫ বছর অবসরে থেকে তিনি অবলোকন করেন যে, তাঁর হাতে তিলে তিলে সাজানো ও গড়ে তোলা সমৃদ্ধ মালয়েশিয়া যেন দিন দিন দুর্নীতিতে ডুবে যাচ্ছে। তাই বিবেকবোধ  ও গভীর দেশপ্রেম থেকে উদ্বুদ্ধ হয়ে তিনি পুণরায় দেশের দায়িত্বভার কাঁধে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেন এবং নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণও তাঁকে সাদরে গ্রহণ করে নেন।

জমিয়ত নেতৃদ্বয় ড. মহাথির মুহাম্মদের সফলতা ও কল্যাণ কামনা করে বলেন, পরম করুণাময় আল্লাহ তাঁকে নিরাপদে ও সুস্থ রাখুন এবং দীর্ঘজীবি করুন। আমরা আশাবাদি তিনি শুধু মালয়েশিয়াকেই দুর্নীতিমুক্ত করে উন্নয়ন ও সুশাসনের সঠিক ট্র্যাকে ফিরিয়ে আনবেন না, বরং তিনি ভেঙে পড়া মুসলিম বিশ্বের ঐক্যকে গড়ে তুলতে এবং ওআইসি’র ভূমিকাকে দায়িত্বশীল করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন।

জমিয়ত নেতৃদ্বয় গত ফেব্রুয়ারীর প্রথম সপ্তায় মালয়েশিয়া সফরত জমিয়ত প্রতনিধি দলের সাথে মহাথির মুহাম্মদ এর ব্যক্তিগত সচিব দাতো ড. আব্দুল মালেক এর বৈঠকের কথা স্মরণ করে বলেন, সেই বৈঠকে ব্যক্তিগত সচিবের মাধ্যমে মহাথির মুহাম্মদ জমিয়ত নেতৃবৃন্দকে সালাম পাঠিয়েছিলেন এবং নির্বাচনে ভাল ফলাফলের জন্য দোয়া চেয়েছিলেন। উক্ত প্রতিনিধি দলে ছিলেন, জমিয়তের উলামায়ে ইসলামের যুগ্মমহাসচিব ও জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার সহকারী পরিচালক মাওলানা হাফেজ নাজমুল হাসান, অর্থসম্পাদক ও জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার সিনিয়র মুহাদ্দিস মুফতী মুনির হোসাইন কাসেমী এবং জমিয়ত ঢাকা মহানগরীর নায়েবে আমীর ও জামিয়া মাদানিয়া বারিধারার মুহাদ্দিস মুফতী জাকির হোসাইন। সেই বৈঠকে মহাথিরের ব্যক্তিগত সচিব জানিয়েছিলেন যে, মহাথির বিজয়ি হয়ে মালয়েশিয়ার ও মুসলিম উম্মাহ’র খেদমত করার সুযোগ লাভ করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here