Home জাতীয় ফিলিস্তিনীদের লাশের ওপর মার্কিন দূতাবাস মেনে নেয়া যায় না: আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী

ফিলিস্তিনীদের লাশের ওপর মার্কিন দূতাবাস মেনে নেয়া যায় না: আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী

ইন’আমুল হাসান ফারুকী: জেরুসালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থাপন এবং ইসরাইল কর্তৃক গাজায় মুসলমানদের উপর গণহত্যার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসার সহযোগী মহা-পরিচালক ও শায়খুল হাদীস আল্লামা হাফেজ জুনায়েদ বাবুনগরী আজ সংবাদপত্রে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে বলেছেন, ইহুদী জবরদখলে ভূমি হারানোর বিপর্যয় তথা ফিলিস্তিনীদের নকবা’র ৭০তম বার্ষিকীতে তেল আবিব থেকে জেরুসালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তর কখনো মেনে নেয়া যায় না। এটা একটা অবৈধ পদক্ষেপ এবং আন্তর্জাতিক আইনের মারাত্মক লঙ্ঘন। জেরুসালেম হলো স্বাধীন ফিলিস্তিনের রাজধানী, যা ইসরাইল অন্যায়ভাবে জবর দখল করে রেখেছে। এ অবস্থায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুসালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্থরের মাধ্যমে ফিলিস্তিনীদের দুর্ভোগকে দীর্ঘস্থায়ী করতেই সহায়তা করে যাচ্ছে। ফিলিস্তিনের নিরপরাধ মুসলমানদের লাশের ওপর দাঁড়িয়ে বায়তুল মুকাদ্দাসের পবিত্র ভূমিতে মার্কিন দূতাবাস উদ্বোধনের অনুষ্ঠান উদযাপন মেনে নেয়া যায় না। জারজ রাষ্ট্র ইসরাইলের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের এমন আগ্রাসী পদক্ষেপে বিশ্বের প্রতিটি শান্তিকামী মানুষের অন্তরকে আহত করেছে এবং তাবত মুসলিম জাতির হৃদয়ে এতে ক্ষরণ হচ্ছে।

তিনি বলেন, মুসলমানদের প্রথম কিবলা পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাসের পবিত্র ভূমিতে মার্কিন সাম্রাাজ্যবাদীদের স্থান হতে পারে না। ইহুদীবাদী ইসরাইল একটি অবৈধ সন্ত্রাসী রাষ্ট্র। এই ইসরাইল দীর্ঘ ৭০ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রের মদদে ফিলিস্তিনিদের ওপর অমানবিক নির্যাতন ও গণহত্যা চালাচ্ছে। ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষমতায় আসার পর গণহত্যার মাত্রা আরো বেড়ে গিয়েছে । বিগত ১৫মে অর্ধশতাধিক মুসলমানদের নির্বিচারে গুলি করে হত্যা এবং ২,৫০০ মানুষকে আহত করেছে। এই হত্যাকান্ডের দায়ভার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকেই নিতে হবে। আরব বিশ্বের শাসকদের লজ্জাজনক নির্লিপ্ততার কারণে ইহুদিবাদীরা নিরাপরাধ ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর ভয়াবহ গণহতা চালানোর সুযোগ পাচ্ছে।

বিবৃতিতে তিনি আরো বলেন, মার্কিন দূতাবাস স্থানান্থরের পদক্ষেপ নিছক সিদ্ধান্ত নয়, বরং এটি মার্কিন সাম্রাজ্যবাদী গোষ্ঠী কর্তৃক ফিলিস্তিনের অবশিষ্ট ভূখণ্ড নতুন করে গ্রাস করার চক্রান্ত এবং যুদ্ধবাদী অপতৎপরতা। ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্ত জাতিসংঘের প্যালেস্টাইন বিষয়ক একাধিক প্রস্তাবের চরম লঙ্ঘন।

আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, ফিলিস্তিনিরা আমাদের ভাই- এজন্য তাদের সাথে সংহতি প্রকাশ করা এবং জালিম ইসরাইল ও মার্কিনীদের বিরুদ্ধে গণ-আন্দোলন গড়ে তোলা মুসলিম উম্মাহর ঈমানী দায়িত্ব।

তিনি এই রাষ্ট্রীয় গণহত্যা বন্ধে মুসলিম বিশ্বের নেতৃবৃন্দ ও মানবতাবাদী বুদ্ধিজীবীদেরকে জোরালো কণ্ঠে প্রতিবাদ এবং ফিলিস্তিনি মুসলমানদের ওপর ইসরাঈলী ইহুদিবাদীদের বর্বরোচিত হামলা বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে জাতিসংঘ, ওআইসি এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থাসমূহ এবং বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি জারজ রাষ্ট্র ইসরাইলের সাথে মুসলিম বিশ্বের সকল কূনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করা এবং তাদের সকল পণ্য বর্জন করার আহবান জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.