Home জাতীয় সমকামিতা ইসলাম ও নৈতিকতা বিরোধী জঘন্যতম অপরাধ: আল্লামা বাবুনগরী

সমকামিতা ইসলাম ও নৈতিকতা বিরোধী জঘন্যতম অপরাধ: আল্লামা বাবুনগরী

0

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট সমকামিতাকে বৈধতা দেয়ার কড়া সমালোচনা করে দেশের সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক ধর্মীয় সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও হাটহাজারী মাদরাসার সহযোগী পরিচালক শাইখুল হাদীস আল্লামা হাফেয মুহাম্মদ জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, বিকৃত রুচির সমকামিতা ইসলাম ও নৈতিকতা বিরোধী জঘন্যতম অপরাধ৷ সমকামিতা হচ্ছে এমন এক নিকৃষ্ট, জঘন্য, ঘৃণ্য ও অশ্লীল কাজ, যা কল্পনাও করা যায় না।

আজ (৮ সেপ্টেম্বর) শনিবার সংবাদ মাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতি হেফাজত মহাসচিব এ সব কথা বলেন৷

বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী আরো বলেন, সম্প্রতি ১৫৮ বছরের পুরনো ঔপনিবেশিক আমলের দণ্ডবিধির বিতর্কিত ৩৭৭ ধারা বাতিল ঘোষণা করে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট সমকামিতাকে বৈধতা দিয়ে ইসলাম ও নৈতিকতা বিরোধী অপরাধ করেছে৷ বিকৃত রুচি ও নিকৃষ্ট মনের মানুষ ছাড়া এমন সমকামীতাকে কেউ বৈধ বলতে পারে না৷

তিনি আরো বলেন, সমকামীতা বা homosexuality ইসলামে সম্পূর্ণ হারাম, কবিরা গুনাহ৷ হাদীসে শরীফে রাসূল (সা.) ইরশাদ করেছেন, যে পুরুষ পুরুষের সাথে নোংরা কাজে লিপ্ত হয়, উভয়ে যিনাকারী সাব্যস্ত হবে। তেমনি যে নারী আরেক নারীর সাথে কুকর্মে লিপ্ত হয় উভয়ে যিনাকারী (ব্যভিচারকারী)সাব্যস্ত হবে।

হাদীসের কিতাব আবূ দাউদ শরীফের ৪৪৬২নং হাদীস উল্লেখ করে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, হাদীস শরীফে সমকামীদের শাস্তির বিধান বর্ণিত আছে। রাসূল (সা.) ইরশাদ করেছেন, “কাউকে সমকাম করতে দেখলে তোমরা উভয় সমকামীকেই হত্যা করবে”। হিন্দুধর্ম গ্রন্থেও সমকামিদের শাস্তির বিধান রচিত আছে। মনু সম্রিতি, ৪র্থ অনেচ্ছেদে উল্লেখ আছে, ‘যদি কোন বয়ষ্কা নারী অপেক্ষাকৃত কম বয়সী নারীর (কুমারীর) সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন করে, তাহলে বয়স্কা নারীর মস্তক মুণ্ডন করে দুটি আঙ্গুল কেটে গাধার পিঠে চড়িয়ে ঘোরানো হবে’ (Manu Smriti chapter 8, verse 370)। “যদি দুই কুমারীর মধ্যে সমকামিতার সম্পর্ক স্থাপিত হয়, তাহলে তাদের শাস্তি ছিলো দুইশত মূদ্রা জরিমানা এবং দশটি বেত্রাঘাত” (Manu Smriti chapter 8, verse 369). “দু’জন পুরুষ অপ্রাকৃতিক কার্যে প্রবৃত্ত হলে তাদেরকে জাতিচ্যুত করা হবে” (Manu Smriti Chapter 11, Verse 68.)

আল্লামা বাবুনগরী আরো বলেন, শুধু ইসালাম ধর্ম ও নীতি নৈতিকতা থেকে নয়, বরং আধুনিক বিজ্ঞান ও ডাক্তারী থিওরী মতেও সমকামীতা বা homosexuality তে অনেক ক্ষতি রয়েছে৷ সমকামীতার দরূন সিফিলিস, গণোরিয়া, প্রস্রাবে ইনফেকশন ও হেপাটাইটিস বি, এইডস ইত্যাদি সহ নানান রোগের সংক্রমণ হয়৷ সমকামিরা হিউম্যান প্যাপিলোমা ভাইরাস নামক ভয়ানক ভাইরাসে আক্রান্ত হয়।

তিনি আরো বলেন, সমকামীদের সামাজিক ও রাষ্ট্রীয়ভাবে বয়কট করতে হবে৷ এদের দ্বারা সমাজ বিনষ্ট হচ্ছে৷ এই বিকৃত রুচির সমকামীতা বন্ধ করতে না পারলে সমাজে সহিংসতা ও অবাধযৌনতা বৃদ্ধি পাবে৷

আল্লামা বাবুনগরী আরো বলেন, আধুনিক ব্যক্তি ও সমাজ জীবনে নৈতিকতা দিন দিন অবক্ষয় হচ্ছে৷ আধুনিক সমাজে উন্মুক্ত যৌনাচার সভ্য মানুষকে পশুত্বের দ্বারপ্রান্তে দাঁড় করিয়েছে। বস্তুবাদী সমাজে অশালীন ও অশ্লীল যৌনাচার, নৈতিকতাহীনতার এক ভয়াবহ স্তরে উপনীত হয়েছে। ফলে পরিবার গঠন এবং বিবাহ পদ্ধতি প্রায় যেন বিলুপ্তির পথে। অবাধ যৌনাচারের উপর কোন ধর্মীয় এবং সামাজিক বিধিনিষেধ আরোপ যেন আজকের সমাজে অনগ্রসরতার প্রতীক! আমরা যাকে সভ্যতা বলে জাহির করতে চাচ্ছি, আসলে সেটা যে নৈতিকতার বীভৎসতা, সেই উপলব্ধিটুকুও যেন আজ আমরা হারাতে বসেছি! তিনি বলেন, ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের কর্তব্য, এই বিকৃত রুচির রায় প্রত্যাহার করা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.