Home আঞ্চলিক রাষ্ট্রীয়ভাবে কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে: ছাত্র জমিয়ত ঢাকা মহানগরী

রাষ্ট্রীয়ভাবে কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে: ছাত্র জমিয়ত ঢাকা মহানগরী

0

নূর হোসাইন সবুজ: ছাত্র জমিয়ত ঢকা মহানগর সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদুল্লাহ কাসেমী বলেন, পঞ্চগড়ের আহমদনগরে মুসলিম নামধারী কাদিয়ানীরা ‘জাতীয় ইজতেমা’র নামে মুসলমানদের ঈমান হরণের চেষ্টা চালাচ্ছে। ৯০% মুসলিম অধ্যুষিত দেশে ইসলামী নাম ও পরিভাষা ব্যবহার করে কাদিয়ানীরা কোন কার্যক্রম চলতে পারে না। মানবজাতির ইহকাল ও পরকালের মুক্তির পথ দেখাবার জন্য যুগে যুগে আল্লাহ তায়ালা অসংখ্য নবী-রাসূল প্রেরণ করেছেন। তাদের মধ্যে সর্বযুগের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ এবং সর্বশেষ নবী হচ্ছেন, হযরত মুহাম্মদুর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম। তার পরে আর কোন নবী আসবে না। ঈমানদান হওয়ার জন্য একথার বিশ্বাস স্থাপন করতে হবে।

আজ (৮ ফেব্রুয়ারী) জুমাবার সকাল ৮টায় জমিয়া মাদানিয়া বারিধারায় ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরী’র মাসিক বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

বৈঠকে ছাত্র জমিয়ত ঢাকা মহানগর নেতৃবৃন্দ বলেন, যারা খতমে নবুয়াত অস্বীকার করে তারা কাফের। তারা মুসলমান হতে পারে না। বাংলাদেশ সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম অধ্যুষিত দেশ। এ দেশের মুসলমানগণ এবং ছাত্রসমাজ রাসূলুল্লাহ (সা.)কে নিজেদের প্রাণের চাইতেও বেশী ভালোবাসেন। ইজতেমার নামে তাদের কোন সড়যন্ত্র মুসলমানগণ মেনে নিবে না।

ছাত্র জমিয়ত নেতৃবৃন্দ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, অনতিবিলম্বে পঞ্চগড়ে অনুষ্ঠিতব্য কাদিয়ানিদের ইজতেমা’সহ বাংলাদেশে তাদের সকল কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে৷ কানিয়ানিদের পণ্য নিষিদ্ধ করতে হবে। অন্যথায় ছাত্র সমাজ কাদিয়ানিদের বিরুদ্ধে তৌহিদী জনতাকে সাথে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে।

তারা বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন রাষ্ট্রে কাদিয়ানিদেরকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুলসলিম ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশেও কাদিয়ানীদেরকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণা করার জোর দাবী জানাচ্ছি।
ঢাকা মহানগর সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান নাদিমের সঞ্চালনায় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, সহ সভাপতি ইমাদুদ্দীন হামদুল্লাহ, সহ সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান, শাহজাহান নূর, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ আল হাবীব, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নূর হোসাইন সবুজ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক নূরুন্নবী, আখতার হোসাইন, পাঠাগার সম্পাদক নূরে আলম, কলেজ বিষয়ক সম্পাদক মুস্তফা আল হাসান, সহ অর্থ সম্পাদক মাহদী হাসান, কার্যনির্বাহী সদস্য মাহমুদ হাসান,মহিউদ্দীন আরমান,নেয়ামতুল্লাহ, জুবায়ের, মিজানুর রহমান প্রমুখ।

সর্বশেষ নেতৃবৃন্দ টঙ্গী তুরাগ নদীর তীরে আগামী ১৪-১৫-১৬ ফেব্রুয়ারী’১৯ (বৃহস্পতি- শুক্র ও শনিবার) হক্কানী উলামায়ে কেরামের নেতৃত্বে বিশ্ব ইজতেমার সফলতা কামনা করে ছাত্র সমাজসহ দ্বীনদার তৌহীদি জনতাকে শরীক হওয়ার জন্য উদাত্ত আহবান জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.