Home মহিলাঙ্গন পাকিস্তানের আদালতে আলোচিত সেই দুই বোন স্বেচ্ছায় ইসলামধর্ম গ্রহণ করেছেন

পাকিস্তানের আদালতে আলোচিত সেই দুই বোন স্বেচ্ছায় ইসলামধর্ম গ্রহণ করেছেন

1
- প্রতিকী ছবি।

উম্মাহ অনলাইন: পাকিস্তানের আলোচিত সেই দুই কিশোরী বোন স্বেচ্ছায় মুসলমান হয়েছেন বলে জানিয়েছেন দেশটির আদালত। তাদের বাবা-মা অভিযোগ করেছিল, দুই বোনকে অপহরণ করে হিন্দু থেকে মুসলমান বানানো হয়েছে। এ ঘটনাটি হিন্দু সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ ভারতে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয়েছিল।

গতকাল বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের আদালত বলেন, ওই দুই হিন্দু কিশোরী স্বেচ্ছায় মুসলিম হয়েছে।

আদালতের আদেশে মার্চ মাসের শেষদিকে হিন্দু দুই বোনকে সরকারের জিম্মায় রাখা হয়েছিল। সে সময় সোশ্যাল মিডিয়ার অভিযোগ করা হয়েছিল যে, তারা ইসলামে রূপান্তরিত হওয়ার জন্য জোরপূর্বক বাধ্য হয়েছেন। অন্য ভিডিওতে দেখা যায়, দুই বোন বলছেন তারা দুজন মুসলিমকে বিয়ে করেছেন এবং তারা স্বেচ্ছায় মুসলিম হয়েছেন। আদালত বলেন, তারা যথেষ্ট প্রাপ্তবয়স্ক, তারা তাদের সিদ্ধান্ত নিতে পারেন এবং তাদের কোনো প্রকার জোর করা হয়নি।

পুলিশ জানায়, পাকিস্তানের দক্ষিণ সিন্ধু প্রদেশের দুই কিশোরী ২০ মার্চ পাঞ্জাব প্রদেশে বিয়ে করেন। পুলিশ কিশোরীদের পরিবারের দায়ের করা অপহরণ ও ডাকাতি মামলায় ১০ জনকে আটক করে।

এ ঘটনায় ভারতের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তারা পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানিয়েছেন। এ ছাড়া এ ঘটনায় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্বরাজ টুইটারে বলেন, তিনি একটি প্রতিবেদনের জন্য পাকিস্তানে থাকা ভারতের রাষ্ট্রদূতের কাছে জিজ্ঞাসা করেছিলেন।

পাকিস্তানে মেয়েরা পিছিয়ে রয়েছে বলে মন্তব্য করে দেশটির তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্বরাজের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বার্তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, কিন্তু ভারতের নিজস্ব সংখ্যালঘু মুসলমানদের দেখাশোনা করতে হবে। সূত্র: রয়টার্স ও ইয়েনি শাফাক।

পাক বিমান বাহিনীর রাফাল চালনা প্রশিক্ষণের খবরে ভারতের আতংক!