Home আন্তর্জাতিক কুয়েতে শ্রমিক ভবনে আগুনে নিহত ৪৯ জনের সবাই ভারতীয় নাগরিক

কুয়েতে শ্রমিক ভবনে আগুনে নিহত ৪৯ জনের সবাই ভারতীয় নাগরিক

কুয়েতে বিদেশী শ্রমিকদের আবাসনের একটি ভবনে আগুন লেগে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে অন্তত ৪৯ জন এবং নিহতরা সবাই ভারতীয় নাগরিক বলে দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। স্থানীয় সময় গত সোমবার ভোররাতে কুয়েত সিটির দক্ষিণে ছয় তলা বিল্ডিংয়ে এই আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। এ ছাড়া আগুনে ৫০ জনেরও বেশি আহত হয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা কিছু ছবিতে দেখা গেছে, ভবনের ওপরের তলার জানালাগুলো থেকে কালো ধোঁয়া বের হচ্ছে এবং পাশাপাশি আগুনও নীচের তলা গুলোতে ছড়িয়ে যাচ্ছে।

ফরেনসিক দলগুলো ভবনটিতে উদ্ধার অভিযান চালালোর পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মৃতের সংখ্যা ৩৫ থেকে ৪৯-এ সংশোধন করেছে। দমকল বিভাগের একটি সূত্র জানায়, ভবনে আগুন লাগার পর ধোঁয়ায় দমবন্ধ হয়ে পড়ে শ্রমিকদের।
মন্ত্রণালয় জানায়, ‘শ্রমিকদের ভবনে আগুন লাগার ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ হয়েছে।’ সরকারি কুয়েত নিউজ এজেন্সি স্বাস্থ্যমন্ত্রী আহমাদ আল-আওয়াধির উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছেন, মাঙ্গাফ এলাকায় অগ্নিকাণ্ডে ৫৬ জন আহত হয়েছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে শ্রমিকদের নিয়োগকর্তার দেওয়া তথ্য অনুসারে ভবনটিতে ১৯৬ জন শ্রমিক ছিল।
দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি বিবৃতিতে বলেছে, ‘আগুন কুয়েত রাজ্যে বসবাসকারী ৪৯ ভারতীয়ের জীবন ছিনিয়ে নিয়েছে যা অত্যন্ত দুঃখজনক।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স-এর একটি পোস্টে এই বিপর্যয়কে দুঃখজনক বলে অভিহিত করেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘যারা তাদের নিকটাত্মীয়দের হারিয়েছেন তাদের প্রতি আমার সমবেদনা।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেছেন, ‘ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কীর্তি বর্ধন সিংও সহায়তার সমন্বয় এবং মৃতদের ফিরিয়ে আনার জন্য কাজ করছেন।’

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রহ্মণ্যম জয়শঙ্কর সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জানিয়েছেন, তিনি গভীরভাবে মর্মাহত। যারা দুঃখজনকভাবে তাদের জীবন হারিয়েছে তাদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কুয়েত কতৃপক্ষ আগুনে আহতদের জন্য দ্রুত পুনরুদ্ধার এবং সহায়তা করার জন্য সকল চেষ্টা করবে।

আরও পড়তে পারেন-

অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী শেখ ফাহদ আল-ইউসেফ বলেছেন, সম্ভাব্য অবহেলার জন্য ভবনের মালিককে আটক করা হয়েছে। তিনি আরো বলেছেন, নিরাপত্তা বিধি লঙ্ঘনকারী যেকোন সম্পত্তি অবিলম্বে বন্ধ করে দেওয়া হবে। আইনি প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত ওই ভবনের মালিককে আটক রাখা হবে। তিনি বলেন, ‘অতিরিক্ত শ্রমিকের চাপ এবং অবহেলার সমস্যা সমাধানে কাজ করব।’

বুধবার (১২ জুন) স্থানীয় সময় সকাল ৬টায় দক্ষিণ কুয়েতের মাঙ্গাফ শহরে একটি ভবনে এই আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। গাল্ফ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বুধবার ভোরে মাঙ্গাফ শহরের ছয়তলা ভবনের একটি রান্নাঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত। তেল সমৃদ্ধ কুয়েতে বিপুল সংখ্যক বিদেশী কর্মী রয়েছে, যাদের অনেকেই দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এবং বেশিরভাগই নির্মাণ বা পরিষেবা শিল্পে কাজ করে।

সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান

উম্মাহ২৪ডটকম: আইএ

উম্মাহ পড়তে ক্লিক করুন-
https://www.ummah24.com

দেশি-বিদেশি খবরসহ ইসলামী ভাবধারার গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে ‘উম্মাহ’র ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।