Home স্পোর্টস দেশে ফিরেছে ক্রিকেট দল: সেই ভয়াবহ অভিজ্ঞতা নিয়ে যা বললেন মাহমুদউল্লাহ

দেশে ফিরেছে ক্রিকেট দল: সেই ভয়াবহ অভিজ্ঞতা নিয়ে যা বললেন মাহমুদউল্লাহ

1

নিজেদেরকে খুব ভাগ্যবান বলে মনে করেন বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তিনি বলেন, ‘শুধু এতটুকু বলতে চাই, আমরা খুব ভাগ্যবান যে, এখন এখানে বসে আছি। আপনাদের সবার দোয়া, দেশবাসির দোয়া, বাবা-মা, পরিবার-পরিজন, আমরা আল্লাহর রহমতে এখানে এসে পৌঁছাতে পেরেছি।’

শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে জুমার নামাজ পড়তে গিয়ে যে ভয়াবহ অভিজ্ঞতা অর্জন হয়েছে টিম বাংলাদেশের গণমাধ্যমকর্মীদের সে কথা জানাতেই এভাবে নিজের অভিব্যক্তি প্রকাশ করলেন মাহমুদউল্লাহ।

গতকাল শনিবার রাত ১০টার কিছু পর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নিরাপদেই দেশে ফিরেছেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। তবে ক্রিকেটারদের মানসিক অবস্থা আর সব সফর শেষে ফেরার মতো নয়। এখানে নেই পারফরম্যান্স নিয়ে কোনো প্রশ্ন। পরিবেশটা একেবারেই ভিন্নরকম। মাহমুদউল্লাহ ও তার সর্তীর্থরা যে ভালোভাবেই যে ফিরেছেন এতেই যেন সন্তুষ্টি।

ভয়ঙ্কর এক অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে নিউজিল্যান্ড সফর শেষ হলো টাইগারদের। মাত্র ৫ মিনিট বিলম্ব হলেই প্রাণে বাচঁতেন না বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। সেদিন ক্রাইস্টচার্চের সেই মসজিদে জুমা পড়তে যাচ্ছিলেন মাহমুদউল্লাহরাও। মসজিদের সামনেও পৌঁছে গিয়েছিলেন তারা। তবে মাত্র ৫ মিনিট দেরি করে ফেলায় প্রাণে বেঁচে যান ক্রিকেটাররা। ঘটনাস্থলে ক্রিকেটাররা নিজেদের শান্ত রেখে পাশ্ববর্তী হাগলি ওভাল স্টেডিয়ামে ফিরে আসেন এবং সেখান থেকে চলে যান টিম হোটেলে।

ক্রাইস্টচার্চের ওই ঘটনার পর দ্রুতততার সঙ্গে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করেছে বিসিবি এবং বাংলাদেশ সরকার। বিমান বন্দরে পৌঁছানোর পর সেখানেই গণমাধ্যমকর্মীদের মুখোমুখি হন বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। সেই ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথার স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এটা বর্ণনা করতে পারবো না যে, আমরা কিসের মধ্যে আছি এখন। আমরা কি দেখেছি, এটা আসলে বিশ্বাস করার মত না।’

নিউজিল্যান্ডের শান্তিপূর্ণ দেশে এমন ঘটবে তা কারও কল্পনাতেও ছিল না বলে জানান মাহমুদউল্লাহ। তিনি বলেন, ‘এ ঘটনা আসলে অনাকাঙ্খিত। সবচেয়ে বড় কথা, নিউজিল্যান্ডের মত দেশে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে- এটা খুব আনএক্সপেক্টেড।’ এ ঘটনার পর দলের কেউই, সারারাত ঘুমাননি বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, রুমে ফিরে একটা কথাই মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছিল যে, আমরা কত ভাগ্যবান যে, সাক্ষাৎ মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে ফিরেছি। বিসিবি ও বিসিবি প্রধানকে ধন্যবাদ রিয়াদ বলেন, ‘বোর্ডের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ হলো, তারা খুব দ্রুত আমাদের ফেরার ব্যবস্থা করলেন। এ জন্য বিসিবি ও পাপন ভাইকে বিশেষ ধন্যবাদ জানাই।

রিয়াদ মনে করেন দেশবাসীর দোয়া ও শুভকামনা সঙ্গে ছিল বলেই আজ মহান সৃষ্টিকর্তা তাদের জীবন দান করেছেন। এজন্য দেশবাসীর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। তিনি বলেন, ‘দেশবাসির কাছে আবেদন থাকবে, তারা যেন আমাদের জন্য সবসময় দোয়া করেন এবং এই মানসিক অবস্থা থেকে যেন আমরা তাড়াতাড়ি বের হয়ে আসতে পারি।’

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.