Home রাজনীতি ইফতার ও নামাজের সময় বাসের বিরতি বাধ্যতামূলক করুন: আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী

ইফতার ও নামাজের সময় বাসের বিরতি বাধ্যতামূলক করুন: আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীর ও আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি হাফেজ মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী বাসের নিচে ফেলে একজন রোযাদারকে নির্মম হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, শুধু রোযাদার নয় যেকোন যাত্রী তার প্রাণ বাঁচাতে পানি ইত্যাদি ক্রয়ের জন্য বাস থামানোর অনুরোধ করতে পারে। এজন্য তাকে বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে বাসের চাক্কায় পিষ্ট করে হত্যা করা জঘণ্য ও বর্বরতম অপরাধ। এমন নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ডের নজীর কোথাও নেই। তিনি অবিলম্বে এ নির্মম হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত চালক ও হেল্পারদের দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবী জানান। মাওলানা আতাউল্লাহ রমজান মাসে রোযাদারদের ইফতারীর জন্য এবং সারা বছর নামাজের সময় দূরপাল্লার সকল বাসগুলোকে কমপক্ষে ১০ মিনিট বিরতি দেয়া বাধ্যতামূলক করার দাবী জানিয়ে বলেন, ওয়াক্তমত নামাজ পড়া মুসলমানদের জন্য ফরজ। ৯৫% মুসলমানের দেশে এ ফরজ বিধান পালনের সুযোগ করে দেয়া সরকারের দায়িত্ব।

গতকাল (১৩ মে) সোমবার বাদ জোহর জামিয়া নূরিয়া ইসলামিয়া কামরাঙ্গীরচর মাদরাসা মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশ ঢাকা-৪ নং জোন কমিটির পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। জোন সভাপতি মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন- শায়খুল হাদীস আল্লামা সোলায়মান নোমানী, মাওলানা মুজীবুর রহমান হামিদী, মাওলানা মিজানুর রহমান, মুফতি জসীমুদ্দীন কাসেমী, মুফতি আ ফ ম আকরাম হুসাইন, মাওলানা আবু ইউসুফ, মুফতি আখতারুজ্জামান আশরাফী, মুফতি মীর শামসুদ্দীন বড়াইলী, মাওলানা কামরুজ্জামান রাহমানী, মুফতি হাবিবুর রহমান, মোঃ রাশেদ, মুফতি মাহমুদুল হাসান ও মুফতি আবু সাঈদ প্রমুখ।

মাওলানা আতাউল্লাহ আরো বলেন, বিশ্বনবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে সর্বশেষ নবী হিসেবে অস্বীকারকারী কাদিয়ানী সম্প্রদায় বিশ্বের সর্বস্তরের ওলামায়ে কেরামের ফতোয়া অনুযায়ী অমুসলিম ও কাফের। কাদিয়ানীদেরকে কাফির মনে না করলে, তারাও কাফের। অতএব, নবীর দুশমন কাদিয়ানীদের পক্ষে যারা দালালী করবে, তাদের ঈমান থাকবে না।

সভাপতির ভাষণে মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী বলেন, কাদিয়ানীদের অর্থে লালিত-পালিত জনবিচ্ছিন্ন কতিপয় এমপি-মন্ত্রী লাগামহীন বক্তব্য দিয়ে জাতিকে বিভ্রান্ত করছে। ধর্মীয় বিষয়ে মূর্খতাসূলভ ও উস্কানীমূলক বক্তব্য না দেয়ার জন্য তিনি এমপি-মন্ত্রীদের প্রতি আহবান জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.