Home ওপেনিয়ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী! আপনি সফল, নুতন আর কোন নক্সা তৈরির প্রয়োজন নেই

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী! আপনি সফল, নুতন আর কোন নক্সা তৈরির প্রয়োজন নেই

।। আল্লামা আব্দুর রব ইউসুফী ।।

ভারতের রাজনীতিতে উগ্র সাম্প্রদায়িকতা ও হিন্দু হিংস্রবাদ সৃষ্টি করে নরেন্দ্র মোদী সফল হয়েছে। তা দেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও দৃশ্যত: চিন্তিত হয়ে পড়েছেন বলে মনে হচ্ছে। হয়তো তিনি ভাবছেন- কি জানি, বাংলাদেশেও এমন কোন গোষ্ঠী জেগে ওঠে, যারা ভারতের হিন্দুত্ববাদিদেরকে অনুসরণ করে এ দেশেও মুসলিম জনতার মধ্যে ধর্মীয় উত্তেজনা সৃষ্টি করে ধর্মনিরপেক্ষবাদী তাঁর সরকারের বারোটা বাজায়। হয়তো এ কারণেই তিনি এলোমেলো ধর্মীয় শ্লোগান বা নিজের মতো করে ইসলামের নতুন নতুন ব্যাখ্যা হাজির করতে শুরু করেছেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আমি আশ্বস্ত করতে চাই যে, অনুগ্রহ করে আপনি বাদশা আকবরের মতো ইসলামের বিকৃত কোন রূপ সৃষ্টি করতে যাবেন না। এর আর কোন প্রয়োজনই নেই। আপনি যেভাবে জঙ্গীবাদ প্রসঙ্গে আলোচনা করতে গিয়ে বেহেস্ত-দোযখ প্রসঙ্গ টেনে হাস্যরস করছেন, মুসলিম নারীদের অপরিহার্য পালনীয় ইসলামী বিধান হিজাব-পর্দা নিয়ে ব্যাঙ্গাত্মক উক্তি করছেন, তা সাধারণ মুসলমানদের মধ্যে নতুন করে আতংক, উদ্বেগ ও অসন্তোষ তৈরি করতে শুরু করেছে।

আপনাকে সবিনয়ে আরজ করতে চাই, ইতিমধ্যেই আপনি যে তিনটি কাজ সমাধা করতে পেরেছেন তাতেই আপনার আতংকিত হওয়ার প্রয়োজন শেষ হয়ে গেছে।

(এক) ইনসাফ, সুবিচার, ন্যায্য অধিকার আদায়, দেশাত্মবোধ ও আদর্শিক আন্দোলন-সংগ্রামের মূল উৎস- উলামায়ে দেওবন্দ। তাঁদের একটি অংশ অতি ক্ষুদ্র হলেও তাঁদেরকে স্যেকুলারিজম ও আধিপত্যবাদের পক্ষে পাক্কা দালালীতে নামাতে সক্ষম হয়েছেন।

(দুই) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে উলামায়ে দেওবন্দের একটি বড় অংশকে অসত্যের সামনে “আস্ সাকিতু আনিল হক”-এর মিসদাক বানাতে পারঙ্গমতার সাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছেন।

(তিন) উলামায়ে দেওবন্দের মধ্যে অবশিষ্ট যাঁরা এর বাইরে রয়ে গেছেন, মাঝে-মধ্যে একটু-আধটু হক কথা, ন্যায়-ইনসাফ ও সুবিচারের পক্ষে মৃদু আওয়াজে টুকিটাকি বলতে চান, তাদেরকেও মুসলমানি করানো হয়ে গেছে। এরা বড় ধরনের আন্দোলন-সংগ্রামের পথে এগুতে চাইলে তাঁদের সামনে সীসাঢালা বাধার প্রাচীর তৈরি করতে পূর্বোক্ত দুই শ্রেণীর আলেমরা নানা মুসলিহাত নিয়ে সামনে হাজির হতে দেরি করেন না। আন্দোলনের নেতৃত্ব স্বপ্রণোদিত হয়ে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে সেখানেই দাফন করে দেন।

তাই বলছি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী! আপনি অত্যন্ত সফল। নুতন করে আর কোন নক্সা তৈরির প্রয়োজন নেই।

কুরবানির চামড়ায় গরীব শেষ, ধানের মুল্যে কৃষক শেষ, নির্বাচনে গণতন্ত্র শেষ, উন্নয়নে সুশাসন শেষ। আপনার এতসব সফলতায় মনের বিরদ্ধে যায় যাক, আপনাকে ধন্যবাদ।

– আল্লামা আব্দুর রব ইউসুফী, সহসভাপতি- জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ, নায়েবে আমীর- হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগর।

মুসলমানগণ কখনো মন্দ কাজ ও জুলুম করতে পারেন না

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.