Home অন্যান্য খবর ঈমান-আক্বিদা, রাষ্ট্র ও মানবাধিকারের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সোচ্চার হতে হবে: ছাত্র জমিয়ত...

ঈমান-আক্বিদা, রাষ্ট্র ও মানবাধিকারের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সোচ্চার হতে হবে: ছাত্র জমিয়ত সভাপতি

0

ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি এখলাছুর রাহমান রিয়াদ বলেন, ছাত্র জমিয়তের কর্মীরা সমাজ, দেশ ও জাতিকে সামনে রেখে রুসুখ ও উছুক্ব ফিল ইলম হাসিল করবে। সমাজের সর্বোচ্চ সচেতন নাগরিক হবে ছাত্র জমিয়তের কর্মীরা। প্যারাইলড মুমিন হওয়া কখনো ছাত্র জমিয়তকর্মীর গুণ হতে পারে না। ছাত্র জমিয়তের কর্মীরা হবে সৎ সাহসী।

সদস্য সংগ্রহ অভিযান বিষয়ে তিনি বলেন, শুধু সিলেট জেলা থেকে ২০ হাজার সদস্য সংগ্রহ করে দিতে হবে। সদস্য সংগ্রহকে কেন্দ্রকরে প্রত্যেক গ্রামে গঞ্জে পাড়ায় মহল্লায় জমিয়তের আওয়াজ তুলতে হবে। স্কুলয কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ছাত্রের কাছে সংগঠনের দাওয়াত পৌঁছে দিতে হবে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা আজ ঝুলন্ত প্রায়। সেদিন বেশী দূরে নয় যে দিন বাংলাদেশের অবস্থা কাশ্মীরের মতো হবে। কারণ, চতুর্দিক থেকে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। আমরা সেই আলামত স্পষ্টত: দেখতে পাচ্ছি। সুতরাং ঈমান-আক্বিদা, রাষ্ট্র ও মানবাধিকারের পক্ষে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সোচ্চার হতে হবে। ঈমানের বলে বলিয়ান হয়ে ঈমান-আক্বিদার সুরক্ষা এবং দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, মানবাধিকার ও জনঅধিকার রক্ষায় আগামিতে ছাত্র জমিয়তকেই নেতৃত্ব দিতে হবে।

গতকাল (২০ আগস্ট) মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় বন্দর বাজারস্ত জেলা অফিসে সিলেট জেলা ছাত্র জমিয়তের সদস্য সংগ্রহ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে ছাত্র জমিয়ত সভাপতি উপরুক্ত কথাগুলো বলেন।

জেলা সহ সভাপতি আব্দুল হামিদ খান ও মাসুম আহমদের সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ উদ্দীন ও প্রচার সম্পাদক নুমান ছিদ্দিকের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি লুৎফুর রাহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদুল হক উমামা, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শাহিদ আহমদ হাতিমী।

অনুষ্ঠানে জেলা শাখার দায়িত্বশীল ও সদস্যদের পাশাপাশী জেলার আওতাদিন উপজেলা ও পৌর শাখা সমূহের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ছাত্র জমিয়ত সভাপতি আরো বলেন, ছাত্র জমিয়তের প্রতিটি কর্মী হবে আদর্শ লেখক এবং আদর্শ বক্তা। ছাত্রজমিয়ত হচ্ছে রাজনীতি করা নয় বরং শেখার জায়গা। ইসলামি আদলে সমাজ ও দেশ পরিচলনা করার যোগ্যতা অর্জনের জায়গা হচ্ছে ছাত্রজমিয়ত।

তিনি বলেন, সময়ের ব্যবধানে ছাত্র জমিয়তের কর্মীরা দেশসেরা লেখক, বক্তা, চিন্তক হতে হবে এবং এজন্য সর্বপ্রকার মেহনত করাই হচ্ছে ছাত্রজীবনে ছাত্র জমিয়ত কর্মীর একমাত্র করণীয়। ছাত্র জমিয়তের কর্মীরা কারো পাতানো ফাঁদে পা দিতে পারে না। অসৎ পথে তারা ব্যবহৃত হতে পারে না। সমাজের সববিষয়ে তারা সচেতন থাকতে হবে। ঈমান, আমলের ক্রান্তিকালে কুরআন ও হাদীসের সাথে গভীর সম্পর্ক রাখতে হবে। -বিজ্ঞপ্তি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.