Home রাজনীতি বাংলাদেশের রাজনীতি অন্তিম জায়গায় এসে গেছে: মনজু

বাংলাদেশের রাজনীতি অন্তিম জায়গায় এসে গেছে: মনজু

0
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দিচ্ছেন- ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’র প্রধান সমন্বয়ক মজিবুর রহমান মনজু।

আওয়ামী লীগ নেতারা এখন হতাশ বলে মন্তব্য করেছেন ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’র প্রধান সমন্বয়ক মজিবুর রহমান মনজু। তিনি বলেন, ‘আমরা মনে করছি বাংলাদেশের রাজনীতি একটা অন্তিম জায়গায় এসে গেছে। এমন অবস্থার কারণেই রাজনৈতিক দল গঠনের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে।’

গতকাল শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে নাটোর শহরের সাহারা প্লাজায় এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মজিবুর রহমান মনজু বলেন, ‘বিএনপি নেতাদের জিজ্ঞেস করলে তারাও বলবে যে তাদেরও সে শক্তি নেই। বিএনপি নেতারা এখন সহসাই বলে যে, আমরা রাজপথে লোক নামাতে পারছি না। নেত্রীর মুক্তির জন্য বা যেকোনও জনকল্যাণের কারণেই হোক না কেন রাস্তায় লোক নামাতে পারছি না। এই অত্যাচার নিপীড়নের মুখে লোকদেরকে রাজপথে নামানো যাচ্ছে না। অনুরূপভাবে আদর্শিক দলগুলোর দিকে তাকালে দেখা যায়, তারাও এক ধরনের আপোসকামী রাজনীতিতে এসেছে।’

দল গঠন প্রসঙ্গে মজিবুর রহমান মনজু বলেন, ‘আমাদেরকে এ পর্যায়ে সবচেয়ে বেশি উৎসাহিত করেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের আন্দোলন। তরুণ শিশু-কিশোরদের আন্দোলন দেখে আমরা বুঝতে পেরেছি যে, এ দেশটা এখনও ধ্বংস হয়ে যায়নি। একটা সত্য সঠিক প্ল্যাটফর্ম পাওয়া গেলে এ প্রজন্মকে জাগিয়ে তোলা সম্ভব।’

দলের নেতৃত্ব নির্বাচনের উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘রুট লেভেলের জনসমষ্টির মধ্যে থেকেই নেতৃত্ব উঠে আসবে। কারণ আমরা এই ধারণা ভেঙে দিতে চাই যে, পরিবারতন্ত্র ছাড়াও নেতৃত্ব সম্ভব।’ এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তিনি দাবি করেন, ‘আমাদের দেশে নেতৃত্ব নিয়ে কোন্দল রয়েছে। আপনি এদিকে গেলেন, তো একটা ব্লকে পড়ে গেলেন। আপনি এই চিন্তায় গেলেন, তো অমুকের মতাদর্শে দীক্ষিত হয়ে গেলেন। আমরা এ বিতর্ক গুলোর ওপরে উঠতে চাই বিধায় নেতৃত্বের ক্ষেত্রে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।’

জামায়াতে ইসলামীর সাবেক নেতা মজিবুর রহমান মনজু দাবি করেন, ‘অন্যায়ের বিরুদ্ধে এবং ন্যায়ের জন্য যেসব সংগ্রামী নেতা পথ দেখিয়েছেন, আমরা তাদেরই অনুসরণ করবো।’

উল্লেখ্য, ‘জনআকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ ২৭ এপ্রিল ঢাকায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করে। প্রাথমিকভাবে একজন আহ্বায়কের নেতৃত্বে ৪৯ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। গঠিত আহ্বায়ক কমিটি প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সংগঠন প্রতিষ্ঠা এবং সবার মতামতের ভিত্তিতে খসড়া গঠনতন্ত্র ও ইশতেহার চূড়ান্ত করবে। আগামী মার্চ মাসের মধ্যে দলের নাম ঘোষণা করা হবে বলে তখন জানানো হয়। -বিজ্ঞপ্তি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.