Home অন্যান্য খবর দেশে ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে: ড. কামাল

দেশে ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে: ড. কামাল

0

ডেস্ক রিপোর্ট: দেশে ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

তিনি বলেন, দেশের জেলায় জেলায় যে নারী ধর্ষণ হচ্ছে, তাতে বোঝা যায় দেশে ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করেছে। কিন্তু এটা কেন? এতে বোঝা যায় আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা কমেছে। এটা আমাদের জন্য গভীর উদ্বেগের বিষয়।

গত শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীসহ সারাদেশে ধর্ষণ ও নির্যাতনের প্রতিবাদে ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন ডক্টর কামাল।

তিনি আরও বলেন, সরকার দেশের মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হচ্ছে। দেশে আজ ধর্ষণ, নির্যাতন, হত্যা বাড়ছে। দেশে আজ আইনের শাসন নেই। অথচ স্বাধীনতার ৫০ বছর হতে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা কী পেলাম। দেশে আজ কেন এ ধরনের ঘটনা ঘটবে। তাই আমরা চাই, দেশে যেন আইনের শাসন কার্যকর হয়। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা পায়। তা না হলে কোনদিন তারা সমাজকে সন্ত্রাসমুক্ত করতে পারবে না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান বলেন, এ দেশ কি সম্ভ্রমহানির রোল মডেল? সরকারকে সারাদেশের মানুষকে এই প্রশ্ন করতে হবে। সরকারকেও জবাবদিহি করতে হবে। কোনো সভ্য দেশে এমন ঘটনা ঘটতে পারে না।

অনুষ্ঠানে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন।

এদিকে, মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দিয়ে নির্বাচনে কাজ করার জন্য আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের প্রতি আহবান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আইন বলে মন্ত্রী বা এমপি থাকলে নির্বাচনের প্রচারণায় অংশ নিতে পারবেন না। তাই আপনি মন্ত্রিত্ব এবং এমপিত্ব ছেড়ে দিয়ে আসুন। আপনি নৌকার জন্য নির্বাচনী প্রচারণা চালান আর আমি ধানের শীষের প্রচারণা চালাই। দেখা যাবে, জনগণ কোন দিকে থাকে। ক্ষমতা থেকে নেমে এসে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করুন।

গত শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত সমাবেশে এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব।

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসা দাবি করে তিন বলেন, খালেদা জিয়া আজ গণতন্ত্রের জন্য কারাবরণ করে আছেন। তাকে বেআইনিভাবে মিথ্যা মামলায় আটক করে রাখা হয়েছে। তাকে জামিন দেয়া হচ্ছে না। সরকার দেশের সব রাষ্ট্রযন্ত্রকে দখল করার পাশাপাশি বিচার বিভাগকে দখল করে নিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.