Home অন্যান্য খবর গোয়াইনঘাটে হিন্দু সম্প্রদায়ের দরিদ্র পরিবারে জমিয়তের ত্রাণ বিতরণ

গোয়াইনঘাটে হিন্দু সম্প্রদায়ের দরিদ্র পরিবারে জমিয়তের ত্রাণ বিতরণ

আবু তালহা তোফায়ে (সিলেট থেকে): জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ গোয়াইনঘাট উপজেলা শাখার উদ্যোগে আজ (৫ এপ্রিল) রবিবার উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের অসহায় ও হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে ত্রাণ সহায়তার অংশ হিসেবে চাউল বিতরণ করা হয়।

করোনা সংক্রমণরোধে লকডাউন পরিস্থিতির কারণে এসব পরিবার সীমাহীন দু:খকষ্টে পড়ে যায়। এই খবর জানার পর গোয়াইনঘাট উপজেলা জমিয়ত তাদের পাশে খাদ্য সহায়তা নিয়ে দাঁড়ায়।

চাল বিতরণে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক ও গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা গোলাম আম্বিয়া কয়েছ, গোয়াইনঘাট উপজেলা ছাত্র জমিয়তের সহ-সভাপতি মাওলানা মুহসিন আহমদ, ছাত্রনেতা প্রিন্স বাহার, ছাত্র জমিয়ত কর্মী ফয়সাল আহমেদ প্রমুখ।

এসময় উপজেলা জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক ও গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা গোলাম আম্বিয়া কয়েছ বলেন, সারা পৃথিবী জুড়ে যে অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে তাতে অসহায় হতদরিদ্র মানুষগুলো সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছে। এ অবস্থায় সামর্থবা বা বিত্তবানদের উচিত সকল অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো। এক্ষেত্রে দলমত, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে সহযোগিতা করতে হবে। কেনন সকলেই মহান আল্লাহর সৃষ্টি।

নিজের, পরিবারের এবং সমাজের নিরাপত্তাবিধান সচেতনতার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, মাক্বাসিদুশ্ শারীয়াহ্ তথা শরীয়তের উদ্দেশ্য অনুযায়ী সকলকে জানমাল রক্ষার অগ্রাধিকারের শর্ত পূরণে আমাদের সামাজিক ধর্মীয় নীতিমালা নির্ধারণ মেনে চলতে হবে। নফসজনিত ঠুনকো আবেগ নয়, দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে ইসলামের মৌলিক দিক নির্দেশনাকে প্রয়োগ করতে হবে।জনগণের নিরাপত্তায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশ এবং নীতিমালা মেনে চলতে হবে।

দরিদ্র এবং অর্থনৈতিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত আত্মীয় স্বজন, প্রতিবেশী, পরিচিতজনের সহযোগিতায় সাধ্যমত এগিয়ে আসতে হবে। কোনো রকমের উম্মাদনা কিংবা প্ররোচণায় সহযোগিতা, সমর্থন থেকে বিরত থাকতে হবে। গৃহে অবস্থানকালীন সময় আত্মা, মেধা মনন এবং শরীরের জন্য গঠনমূলক কাজে নিবেদিত হতে হবে। ‘সবর’ এর সাথে সকলে মিলে এই দুর্যোগে সচেতন থেকে প্রতিরোধ করতে হবে।

তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে শুধুমাত্র আমাদের সৃষ্টিকর্তা, পালনকর্তা পরম করুণাময় আল্লাহ্ সুবহানা ওয়া তায়ালার আশ্রয় গ্রহণ ব্যতিরেকে সৃষ্টিকূল উপায়হীন। আসুন আমরা এ অবস্থা হতে পরিত্রাণের জন্য পরম দয়ালু আল্লাহ্ তায়ালার শরণাপন্ন হই, আরো বেশি বেশি তওবা, ইস্তেগফার, ইবাদত, যিকিরে নিবেদিত হই।