Home অর্থনীতি কোনো কারখানায় আক্রান্ত বেশি হলে সেটি কিছুদিন বন্ধ থাকবে

কোনো কারখানায় আক্রান্ত বেশি হলে সেটি কিছুদিন বন্ধ থাকবে

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। ফাইল ছবি।

ডেস্ক রিপোর্ট: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, কোনো তৈরি পোশাক কারখানায় করোনাভাইরাসে বেশি মানুষ আক্রান্ত হলে সেই কারখানা কিছুদিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া ঢাকা, গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জে যেসব শ্রমিক এসে গেছেন, তাঁদের ‘লকডাউন’ সময়ে অবশ্যই এসব এলাকায় থাকতে হবে। কেউ যদি কোনো কারণে চলেও যান, তাহলে তাঁকে এলাকায় গিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতিতে শিল্প ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সীমিত আকারে চালু রাখার বিষয়ে রোববার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভা শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সভায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের আইজি, তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের নেতা ও একাধিক চিকিৎসক নেতা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়তে পারেন-

‘ইবাদুর রাহমান’ বা আল্লাহর প্রিয় বান্দাদের বিশেষ ১২টি গুণ

কোভিড-১৯ মহামারী এবং ইসলামের শিক্ষা: ফরহাদ মজহার

আদর্শবানরূপে নিজেকে গড়তে চাইলে চার গুণাবলী অর্জন করতে হবে

‘হিজাব’ করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ সহায়তা করে: মার্কিন গবেষক!

বিশ্বকে প্রবলভাবে নাড়িয়ে দিয়েছে করোনাভাইরাস

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আলোচনার মূল বিষয় ছিল গার্মেন্টসগুলো কীভাবে স্বাস্থ্যবিধি পালন করে চলবে। তারা যেন কারখানা চালাতে নিয়মনীতি মেনে চলে। শ্রমিকেরা যেন সেবা পান। ন্যূনতম দূরত্ব বজায় রেখে যেন কাজের ব্যবস্থা করা হয়। পাশাপাশি কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা চালু রাখারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া নমুনা পরীক্ষার সুযোগ বাড়ানোর বিষয়েও বলা হয়েছে।

জাহিদ মালেক বলেন, শ্রমিকদের আনা-নেওয়া ও থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। কারণ, সংক্রমণ বেড়ে গেলে জায়গা দেওয়া যাবে না।

উম্মাহ২৪ডটকম: আরএএম

উম্মাহ পড়তে ক্লিক করুন-
https://www.ummah24.com

করোনাভাইরাস: দেশে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৬৬৫ জন, মারা গেছে ২ জন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.