Home শিক্ষা ও সাহিত্য জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা’র পুরাতন ছাত্র ভর্তি চলছে: যেসব নিয়ম অনুসরণ করতে হবে

জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা’র পুরাতন ছাত্র ভর্তি চলছে: যেসব নিয়ম অনুসরণ করতে হবে

ছবি- উম্মাহ।

উম্মাহ প্রতিবেদক: দেশের অন্যতম বিখ্যাত দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রাজধানীর জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা-ঢাকা’র আগামী ১৪৪১-৪২ হিজরী নতুন শিক্ষাবর্ষে পুরাতন ছাত্রদের ভর্তি কার্যক্রম চলছে। গত ১৪ মে বৃহস্পতিবার থেকে এই ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়েছে এবং ১৯ মে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মোট ৬ দিন চালু থাকবে।

বৃহস্পতিবার পুরাতন ছাত্র ভর্তি কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন জামিয়ার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক শায়খুল হাদীস আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জামিয়ার শায়খুল হাদীস আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক, ভাইস প্রিন্সিপাল হাফেয মাওলানা নাজমুল হাসান, শিক্ষা পরিচালক মুফতি মকবুল হোসাইন কাসেমী, মুহাদ্দিস মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী, মুফতি ইকবাল হোসাইন কাসেমী, সিনিয়র শিক্ষক মুফতি জাকির হোসাইন কাসেমী, মাওলানা হাবীবুল্লাহ ইসলামপুরী প্রমুখ। জামিয়ার ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত শিক্ষাবর্ষের গায়রে বেফাক ছাত্রদের পূর্ণাঙ্গ ফলাফল শীট দেখতে এই লেখার উপর আলতো চাপ দিন

উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে জামিয়ার শিক্ষাবিভাগ বন্ধ রয়েছে। তবে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শুধুমাত্র পুরাতন ছাত্রদেরকে ভর্তি করা হবে।

ভর্তি বিষয়ক নিয়মাবলী প্রসঙ্গে জামিয়ার শিক্ষা পরিচালক মুফতি মকবুল হোসাইন কাসেমী উম্মাহ ২৪ ডট কম’কে মুঠোফোনে বলেন, মক্তব, হিফজ ও প্রাথমিক বিভাগ থেকে শুরু করে দাওরায়ে হাদীস পর্যন্ত এবং উচ্চতর গবেষণামূলক বিভাগ ইফতা, আদব ও উলূমে আলীয়ায় ছাত্র ভর্তি করা হবে। প্রত্যেক জামাতে ভর্তির আসন সংখ্যা সীমিত। ১৯ মে পর্যন্ত সকাল ১০টা হতে দুপুর ১টা এবং বিকাল ২টা হতে আসর পর্যন্ত এই সময়ে ভর্তি কার্যক্রম চালু থাকবে। ভর্তি ফি- ২,০০০ টাকা, কুতুবখানা ফি- ২০০ টাকা, পাঠাগার ফি- ১০০ টাকা, ফরম ফি- ২০০ টাকা সর্বমোট ২,৫০০ টাকা জমা ভর্তির সময় জমা দিতে হবে। নতুন শিক্ষা বর্ষের প্রথম মাসের (জুন) ইউটিলিটি বিল হিফজ ও মক্তব বিভাগ ১,০০০, কিতাব বিভাগ ৫০০ ভর্তির সময় জমা করতে হবে।

জামিয়ার শিক্ষা পরিচালক আরো জানান, ভর্তির উপযুক্ততার জন্য জন্য যোগ্য নম্বর বেফাকভুক্তদের গত ষন্মাসিক পরীক্ষার ফলাফল এবং গায়রে বেফাকদের জন্য বার্ষিক যে কয়টি বিষয়ের পরীক্ষা হয়েছে তার ফলাফলের ভিত্তিতেই ভর্তিযোগ্য হিসেবে বিবেচনা করা হবে। তাকমীল ও ফযীলত-২ এর জন্য ৫০%, ফযীলত-১ থেকে মুতাওয়াসসিতা-৩ পর্যন্ত ৬০%,  মুতাওয়াসসিতা-২ থেকে ইবতেদায়ী পর্যন্ত ৬৫% নম্বর থাকতে হবে। তাখাছ্ছুছাত, যথা- ইফতা বিভাগে ভর্তির জন্য বেফাক পরীক্ষায় তাকমীলে ৮০%, আদব বিভাগের জন্য বেফাক পরীক্ষায় তাকমীলে ৭০%, উলূমে আলিয়া বিভাগে ভর্তির জন্য বেফাক পরীক্ষায় তাকমীলে ৫০% প্রাপ্ত নম্বর থাকতে হবে। উলূমে আলিয়া থেকে আদবে যেতে হলে তাকমীলে ৬৫% এবং উলূমে আলিয়ায় সালানা পরীক্ষায় ৭০% থাকতে হবে। আদব থেকে ইফতায় যেতে হলে তাকমীলে কমপক্ষে ৭৫% এবং আদবে সালানা পরীক্ষায় ৮০% থাকতে হবে। উলূমে আলিয়া থেকে সরাসরি ইফতায় যাওয়ার কোনো সুযোগ নাই।

জামিয়ার ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়েছে, যেসকল ছাত্র জামিয়া ক্যাম্পাসে আসতে পারবে, তারা সরাসরি জামিয়ার শিক্ষাবিভাগীয় কার্যালয়ে এসে ভর্তি ফরম পুরণ এবং নির্ধারিত ফি সমূহ পরিশোধ করে ভর্তিকার্যক্রম সম্পাদন করবে। আর যে সকল ছাত্র করোনায় লকডাউন পরিস্থিতির কারণে সশরীরে আসতে পারবে না, তারা ০১৮২৩৩৬৩৬৩৮ বিকাশ এজেন্ট নাম্বারে (বিকাশ খরচসহ) ভর্তির নির্ধারিত ফি সমূহ পরিশোধ করে ০১৭১২৮৬০৬৩২ অথবা ০১৯২২৫৫৭৯৯৫ মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করে নিজের নাম, পিতার নাম, গত বছরের দাখেলা নম্বর এবং যে নাম্বার থেকে বিকাশ করা হয়েছে তার শেষ ৪ ডিজিট জানিয়ে ভর্তি কার্যক্রম সমাধা করবে।

মক্তব-হিফজ বিভাগসহ কিতাব বিভাগের যেসকল ছাত্র নির্ধারিত এই সময়ের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে সক্ষম হবে না, রমজানের পর কোটা পূরণ হয়ে গেলে তারা আর ভর্তির সুযোগ পাবে না। তবে কোটা খালি থাকা সাপেক্ষেই কেবল ভর্তির সুযোগ পেতে পারে।

উম্মাহ২৪ডটকম:এসএমজে

উম্মাহ পড়তে ক্লিক করুন-
https://www.ummah24.com

আরও পড়তে পারেন-

সফল জীবন ও শান্তিপূর্ণ সমাজ গড়ার সহজ উপায়

অমুসলিমদের সাথে ইসলামের শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান নীতি

মার্কিন গবেষকদের চোখে মুসলমানদের নামাজ

চিন্তার ইতিহাসে সেক্যুলারিজমের জন্ম কীভাবে হয়েছিলো?

মাহে রমযানের ফযীলত এবং বিধি-বিধান ও পূর্ণাঙ্গ মাসআলা