Home রাজনীতি জনগণের মৌলিক প্রয়োজনগুলোর ব্যবস্থা না করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত অমানবিক: জমিয়ত

জনগণের মৌলিক প্রয়োজনগুলোর ব্যবস্থা না করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত অমানবিক: জমিয়ত

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল্লামা শায়খ যিয়া উদ্দীন ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী বলেছেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সতর্কতা পদক্ষেপ হিসেবে লকডাউন যতটা না জরুরি তারচেয়ে বেশি জরুরি জনগণের মৌলিক অধিকার ও বেঁচে থাকার উপকরণ সুনিশ্চিত করা। জনগণের মৌলিক প্রয়োজনগুলোর ব্যবস্থা না করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত অমানবিক।

আজ (৬ এপ্রিল) মঙ্গলবার এক যৌথ বিবৃতিতে তারা আরো বলেন, গত ৫ এপ্রিল থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত এক সপ্তাহব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ, লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

আরও পড়তে পারেন-

নেতৃদ্বয় বলেন, লকডাউন সাধারণ জনতার ও ব্যবসায়ীদের স্বাভাবিক জীবন যাত্রার মানকে ব্যাহত করছে। লকডাউনের কারণে ব্যবসায়িক ধসে পথে নামার উপক্রম ব্যবসায়ীরা। খেয়ে – না- খেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে শ্রমিক ও দিনমজুর শ্রেণির লোকেরা। হতাশা ও নানান ভোগান্তির শিকার হচ্ছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত পেশাজীবী মানুষ।

জমিয়তের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শায়খ যিয়া উদ্দীন ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী বিবৃতিতে আরো বলেন, সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারী ছাড়া লকডাউনের কারণে দেশের সর্বস্তরের মানুষ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার চেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে পেটের ক্ষুধার স্বাভাবিক চাহিদা মিটানোর ব্যর্থতাজনিত মানসিক যন্ত্রণায়। সরকারের উচিত, জনস্বাস্থ্যের নিরাপত্তা ও জনতার মৌলিক প্রয়োজনের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা। এর ব্যত্যয় ঘটলে লকডাউন প্রহসনের লকডাউনে পরিণত হবে।

উম্মাহ২৪ডটকম: এমএ

উম্মাহ পড়তে ক্লিক করুন-
https://www.ummah24.com

দেশি-বিদেশি খবরসহ ইসলামী ভাবধারার গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে ‘উম্মাহ’র ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।