Home আন্তর্জাতিক কানাডায় মুসলিম পরিবারের ৪জনকে হত্যার প্রতিবাদ করলেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান

কানাডায় মুসলিম পরিবারের ৪জনকে হত্যার প্রতিবাদ করলেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান

-ফাইল ছবি।

কানাডায় পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত এক মুসলিম পরিবারের ৪ জনকে গাড়িচাপা দিয়ে হত্যার ঘটনায় এবার মুখ খুললেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি ইসলামফোবিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কথা বলেছেন তিনি। গতকাল বুধবার তুরস্কের একে পার্টির সংসদীয় এক বৈঠকে একথা বলেন এরদোগান। -ডেইলি সাবাহ

প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, ‘ইসলামের প্রতি বিদ্বেষ ও ঘৃণা থেকে মুসলিমদের বিভিন্ন দেশে মুসলিমরা হত্যা ও বৈষম্যের শিকার হন।’ এর আগে, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো কড়া বার্তায় উগ্র ডানপন্থী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে দ্বিগুণ উদ্যমী হওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

মঙ্গলবার পার্লামেন্টের হাউজ অব কমন্সে এই প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিনি আরও বলেন, এটা একটি সন্ত্রাসী হামলা। যা আরেকটি সম্প্রদায়ের প্রতি ঘৃণা থেকে একজন উৎসারিত হয়েছে। ঘৃণার বিরুদ্ধে আমরা অফলাইন এবং অনলাইনে লড়াই চালিয়ে যাব, এর মধ্যে রয়েছে অতি-ডানপন্থী গোষ্ঠীগুলোকে ভেঙে দেওয়া। প্রাউড বয়েজকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর তালিকাভুক্তির মাধ্যমে আমরা তেমনটা করেছি।

আরও পড়তে পারেন-

উল্লেখ্য, গত রবিবারের এ ঘটনায় ওই পরিবারের একজন সদস্য হামলা থেকে বেঁচে গেছে। ৯ বছর বয়সী ওই শিশু এখন হাসপাতালে। তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। এদিকে এ ঘটনায় ২০ বছর বয়েসী হামলাকারী নাথানিয়েল ভেল্টম্যানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহতরা হলেন সাঈদ আফজাল (৪৬) এবং তার স্ত্রী মাদিহা সালমান (৪৪), আফজালের মা (৭৪) এবং আফজাল-মাদিহা দম্পতির কন্যা ইয়ুমনাহ আফজাল (১৫)। এই দম্পতির একমাত্র পুত্র ফায়েজ আফজাল (৯), যে হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

উম্মাহ২৪ডটকম: এসএএ

উম্মাহ পড়তে ক্লিক করুন-
https://www.ummah24.com

দেশি-বিদেশি খবরসহ ইসলামী ভাবধারার গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে ‘উম্মাহ’র ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।