Home অর্থনীতি কোরবানির পশুর চামড়ার দর কিছুটা বেড়েছে

কোরবানির পশুর চামড়ার দর কিছুটা বেড়েছে

- ফাইল ছবি।

গত দুই বছর কোরবানির পশুর চামড়া নিয়ে যে হযবরল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল, এবার তার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। সরকার গরুর চামড়ার দাম প্রতি বর্গফুটে ৫ টাকা করে বাড়ানোর ফলে বাজারে কাঁচা চামড়ার দাম কিছুটা বেড়েছে। আজ বুধবার রাজধানীর ঝিগাতলা ও পোস্তা এলাকা ঘুরে এমন চিত্র পাওয়া গেছে।

এ বছর ঢাকার জন্য লবণযুক্ত কাঁচা চামড়ার দাম গরুর প্রতি বর্গফুট ৪০ থেকে ৪৫ টাকা এবং ঢাকার বাইরে ৩৩ থেকে ৩৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ ছাড়া প্রতি বর্গফুট খাসির চামড়া ১৫ থেকে ১৭ টাকা, বকরির চামড়া ১২ থেকে ১৪ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

চামড়া সংগ্রহে ব্যস্ত মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা। কলাবাগান, ঢাকা, ২১ জুলাই।
চামড়া সংগ্রহে ব্যস্ত মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা।

পোস্তায় কয়েকজন মৌসুমি ব্যবসায়ী ও বিক্রেতার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ২৫–৩০ বর্গফুটের কাঁচা চামড়া গড়ে ৭০০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে। তবে এর নিচের ১৪–২০ বর্গফুটের কাঁচা চামড়া গড়ে ৪০০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে।

আল আমিন নামে একজন জানান, তিনি দুটি কাঁচা চামড়া ৭০০ টাকা করে বিক্রি করেছেন।

আরও পড়তে পারেন-

মৌসুমি ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম জানান, তিনি তখন পর্যন্ত ৩০০টি কাঁচা চামড়া কিনেছেন। প্রতিটি চামড়া ৭০০ টাকা করে কিনেছেন। এগুলো ২৫–৩০ বর্গফুটের কাঁচা চামড়া। তবে তিনি বলেন, ‘গতবারের চেয়ে এবার পোস্তায় এখন পর্যন্ত কাঁচা চামড়া কম আসছে। কারণ, অনেকেই কাঁচা চামড়ার দাম পাবেন না, এমনটা মনে করে মসজিদ, মাদ্রাসা ও পঞ্চায়েতে দান করে দিচ্ছেন।’ তিনি আরও বলেন, গতবারের চেয়ে এবার কাঁচা চামড়ার দাম প্রতিটিতে ৫০ থেকে ১০০ টাকা বেড়েছে।

চামড়া সংগ্রহে ব্যস্ত মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা। কলাবাগান, ঢাকা, ২১ জুলাই।
চামড়া সংগ্রহে ব্যস্ত মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা।

পোস্তার মৌসুমি ব্যবসায়ীরা বলছেন, তাঁরা প্রতিটি গরুর চামড়া গড়ে ৭০০ টাকা করে কিনছেন। এর সঙ্গে লবণ যোগ করা, শ্রমিকের মজুরি ও ভ্যান ভাড়ায় প্রতিটিতে আরও ৩০০ টাকা করে খরচ হবে। সেই হিসাবে তাঁরা লবণযুক্ত চামড়া ১০০০ হাজার টাকায় বিক্রি করতে চান।

চামড়া সংগ্রহে ব্যস্ত মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা। কলাবাগান, ঢাকা, ২১ জুলাই।
চামড়া সংগ্রহে ব্যস্ত মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা।

রাজধানীর তালতলা সরকারি কলোনিসহ কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, চামড়ার কাঙ্ক্ষিত দাম পাবেন না, এমন মনোভাব থেকে অনেকে চামড়া মাদ্রাসায় দান করে দিচ্ছেন।

রাজধানীর আজিমপুরে মৌসুমি ব্যবসায়ী জামাল আহমেদ বলেন, বিকেল চারটা পর্যন্ত মাত্র ২০টি গরুর চামড়া কিনেছেন। প্রতিটি গড়ে পড়েছে ৭০০ টাকা। গতবার এই সময়ে তিনি ৪০০ চামড়া কিনেছিলেন। তিনি বলেন, চামড়া মার্কেটে আসছে কম।

চামড়া সংগ্রহে ব্যস্ত মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা। সায়েন্সল্যাব, ঢাকা, ২১ জুলাই।
চামড়া সংগ্রহে ব্যস্ত মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীরা।

গত দুই বছর কাঁচা চামড়ায় বিপর্যয় নেমেছিল। কোনো কোনো জায়গায় গরুর চামড়ার দাম দেড় শ টাকায় নেমে এসেছিল। দাম না পেয়ে অনেকে কাঁচা চামড়া পুঁতে ফেলেছিলেন। গত বছর তার আগের বছরের (২০১৯) চেয়ে প্রায় ২৯ শতাংশ দাম কমিয়ে ঢাকায় প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। আর প্রায় ২০ শতাংশ দাম কমিয়ে ঢাকার বাইরে প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়ার দাম ২৮ থেকে ৩২ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

উম্মাহ২৪ডটকম: আইএএ

উম্মাহ পড়তে ক্লিক করুন-
https://www.ummah24.com

দেশি-বিদেশি খবরসহ ইসলামী ভাবধারার গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে ‘উম্মাহ’র ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।