Home ধর্মীয় প্রশ্ন-উত্তর মালিকের অগোচরে কোন জিনিস ব্যবহার করলে ক্ষমা লাভের উপায় কি?

মালিকের অগোচরে কোন জিনিস ব্যবহার করলে ক্ষমা লাভের উপায় কি?

প্রশ্নঃ আমি কিছুদিন পূর্বে এক মালিকের অধীনে চাকুরী করতাম। চাকুরী করার সময় বিশেষ এক প্রয়োজনে মালিকের কিছু জিনিস তাকে না জানিয়ে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করি। আমার মালিক খুব রাগী ও ধানাঢ্য লোক।

এখন যদি মালিকের কাছে ঐ জিনিসের কথা বলে মাফ চাইতে যাই, তাহলে খুবই রাগারাগি করবেন, আমাকে খুব খারাপ ভাববেন, মানুষের কাছে বলে বেড়াবেন। ব্যাপারটা সহজভাবে মেনে নিতে চাইবেন না। এসব কথা চিন্তা করে মালিকের বয়স্ক এক ছেলের কাছে ঘটনা খোলাসা করে বলে দাবী ছাড়িয়ে নিয়েছি। ছেলেও সন্তুষ্ট চিত্তে দাবী ছেড়ে দিয়েছেন।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, শরীয়তের দৃষ্টিতে উপরোক্ত পন্থায় আমি দায়মুক্ত হয়েছি কি-না?

– মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ্ বোখারী, টাংগাইল।

উত্তরঃ হক বা প্রাপ্য দুই প্রকার। হক্কুল্লাহ্ তথা আল্লাহর হক্ এবং হক্কুল ইবাদ তথা বান্দার হক্। আল্লাহর হক্ নষ্ট করলে আল্লাহর কাছেই ক্ষমা চাইতে হয়। আর বান্দার হক্ নষ্ট বা আত্মসাৎ করলে সেই বান্দার কাছেই তার হক্ ফেরত দিতে হবে, নইলে মাফ চাইতে হবে। অর্থাৎ- আত্মসাতকৃত জিনিস হাতে বিদ্যমান থাকলে প্রকৃত মালিকের কাছে তা ফেরত দিতে হবে। হাতে না থেকে থাকলে ক্রয় করে হলেও হুবহু সেই জিনিস ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব হলে তা ফেরত দিতে হবে। এটা সম্ভব না হলে, বাজার দর হিসেবে জিনিসটির মূল্য ফেরত দিতে হবে।

এসবের কোনটিই সম্ভব না হলে, মালিকের কাছে ক্ষমা চাওয়ার বিকল্প নেই। তবে এক্ষেত্রে মালিকের ছেলেকে মাধ্যম বানিয়ে ক্ষমা চাওয়া যেতে পারে। প্রশ্নোল্লিখিত পদ্ধতিতে দায় থেকে মুক্ত হওয়া যাবে না। কারণ, আত্মসাৎকৃত জিনিসের মালিক ছেলে নয়, বরং তার বাবা। সুতরাং বাবার কাছ থেকেই ক্ষমা চেয়ে নিতে হবে। তবে যদি এমন হয় যে, মালিকের ব্যবসা বা অর্থ সংক্রান্ত বিষয়াদি পরিচালনায় তার সন্তানও প্রতিনিধিত্ব করেন, এমন পরিস্থিতিতে দায়িত্বপ্রাপ্ত সন্তানের কাছ থেকে মাফ করিয়ে নিলে ক্ষমা পাওয়ার আশা করা যায়।

তথ্য সূত্র: সূরা বাক্বারা- ১৮৮, সূরা নিসা- ২৯, মিশকাত শরীফ- ২/৪৩৫, বাদায়ে’- ৭/১৫০-৫১।

জবাব লিখেছেন- মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী

ফাযেলে দারুল উলূম দেওবন্দ (দাওরা ও ইফতা), মুহাদ্দিস ও আহ্বায়ক- পরিচালনা পরিষদ, জামিয়া মাদানিয়া বারিধারা, ঢাকা।

নোটঃ উম্মাহ ২৪ডটকম এর প্রশ্ন-উত্তর বিভাগে আপনিও চাইলে প্রশ্ন পাঠাতে পারেন। প্রশ্ন অবশ্যই ইসলাম ধর্মবিষয়ক হতে হবে। প্রশ্নের আকার ছোট হতে হবে এবং একক বিষয়বস্তুর হতে হবে। প্রশ্ন পাঠানোর জন্য [email protected] এই ইমেইল ঠিকানা ব্যবহার করুন।

উম্মাহ২৪ডটকম: এমএ

উম্মাহ পড়তে ক্লিক করুন-
https://www.ummah24.com

দেশি-বিদেশি খবরসহ ইসলামী ভাবধারার গুরুত্বপূর্ণ সব লেখা পেতে ‘উম্মাহ’র ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে অ্যাকটিভ থাকুন।