Home সোশ্যাল মিডিয়া লজ্জাজনক এবং বিপদজনক!

লজ্জাজনক এবং বিপদজনক!

1

।। মেরী জোবায়দা ।।

নতুন বছরের মতো একটা সুন্দর অনুষ্ঠান যদি সর্বসম্মত না হয়, তা লজ্জাজনক এবং বিপদজনক। প্রথমত: গত অনেক বছর ধরে এমন আবহে নতুন বছর পালনের ব্যবস্থা করা হয়, যা দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর ধর্মীয় অনুভুতির সাথে সরাসরি সাংঘর্ষিক। দাড়ি-টুপিকে অশুভ শক্তি দেখিয়ে তাকে ঝেটিয়ে বিদেয় করার দিন যেন এটি। এবার নাকি শুরু হয়েছে খালেদা জিয়ার প্রকৃতি নিয়ে মিছিল, যেখানে খালেদার হাত দেয়া হয়েছে বোমা।

এদেশ থেকে নোংরামি বিভাজন এবং নির্লজ্জ বেহায়া চাটুকারীতা ও বিরোধিতা কি কখনো বন্ধ হবে না? যারা এটা করেছে তারা যদি আওয়ামী লীগের সাথে জড়িত থাকে তাদের বিরুদ্ধে সরাসরি সাংগঠনিক পদক্ষেপ গ্রহণ আশা করছি। যেহেতু বিষয়টা আইন আদালতের বাইরে ব্যক্তি স্বাধীনতা এবং নন ভায়োলেন্স এর আন্ডারে পড়ে, তাই সাংগঠনিকভাবে এর বিরুদ্ধে আওয়ামীলীগের আবস্থান দেখার অপেক্ষা করছি।

পাশাপাশি যারা এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করছেন, তাদের থেকেও বিবৃতি দাবী করছি। বৈশাখী শোভায় কারা অংশ নিবেন, তারা কি কি আইটেম নিয়ে আসবেন- এ বিষয়ে অনুষ্ঠান শুরুর কমপক্ষে একসপ্তাহ পূর্বে ক্লিয়ারেন্স থাকা প্রয়োজন ছিল। তারা কি ইচ্ছা করে খালেদার অবমাননা করেছেন নাকি মেলার শৃংখলা রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছেন? এটা তাদের পরিষ্কার করা প্রয়োজন।

কেন এটা জরুরী? আপনারা যারা ক্ষমতার ছত্রছায়ায় ধরাকে সরা জ্ঞান করছেন, তাদের জেনে রাখা ভালো যে, এদেশের কতজন এখনো খালেদাকে ভালো বাসে তার পরিসংখ্যান আমার জানা নেই। কেউ না কেউ যে ভালোবাসে এটা নিয়ে আবার কোন সন্দেহও নেই।

পাশাপাশি আমি নিজে ফেইসবুকে একটা জরীপ চালিয়ে দেখেছি যে, বাংলাদেশের কমপক্ষে পঞ্চাশভাগের বেশি মানুষ আওয়ামী লাগকে পছন্দ করে না। নিজের করা জরিপের যেহেতু স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন নেই, তাই ভয়টা আমার বেশি। ২০৪০ সালের পরে আমি দেখছে চাই না শেখ হাসিনার মুর্তি বানিয়ে বিশাল বিশাল দাঁত চোখ রক্ত লাল লাগিয়ে সো কল্ড প্রতিবাদ করা হচ্ছে বৈশাখের মতো সুন্দরের অনুষ্ঠানে।

বৈশাখ হচ্ছে অতীতের ভুলত্রুটি ভুলে গিয়ে নতুনভাবে শুরু করার দিন, নতুন করে সুসম্পর্ক গঠনের দিন। এই দিনে এমন হিংস্র ব্যবহার কেন?

বাংলাদেশে জন্ম হয়েছে আমার। আপনাদের সাথে আলো বাতাস পানি খাদ্য গ্রহণ করেই বড় হয়েছিলাম। অন্তরের গভীরে একটা ডাক বাংলাদেশের জন্য সবসময় কাজ করে।

আপনারা নিজেদের হিংসা করেন আর ঘৃণা করেন আর ভালোবাসেন, আপনাদের সবার অবস্থান আমার অন্তরে ভাই বোনদের মতো। তাই আপনারা যে-ই যাকে আঘাত করেন না কেন, আমার অন্তর কাঁদে ভাইয়ের হাতে ভাইকে আহত হতে দেখার কষ্টে। যা কাছে থেকে আপনারা দেখতে পান না, তা দূরে থেকে আমি পরিস্কার দেখতে পাই। আর এজন্যই বোনের মন ভেঙ্গেচুরে যায় বর্তমান দেখে; ভবিষ্যতের ভয়ে….।

-মেরী জোবায়দা, সাবেক প্রোগ্রাম ম্যানেজার, টাইম টেলিভিশন, নিউ ইয়র্ক।

হিজাব ও ছাত্রলীগ

শিশু নাঈম ও বাংলাদেশের দেউলিয়া রাজনীতি!

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.