Home কবিতা আমার বাবা (৩)

আমার বাবা (৩)

।। মালেকা ফেরদৌস ।।

বাবা বলতেন-দেখ পাখিরা কি অসীম
শূণ্যতার মাঝে ভেসে থাকার কৌশল রপ্ত করেছে
সমুদ্রের সব ছোট প্রাণীরা-তীব্র স্রোতের প্রবাহ,
ভয়াবহ সব প্রাণীদের হাত থেকে
বাঁচার একটা পথ খুঁজে নিয়েছে,
প্রকৃতিই হরিণকে শিখিয়েছে -অরণ্যে
বাঘেদের সাথে বাস করতে।

বাবা ইতিহাস, স্বাধীনতা আর মানবতার কথা বলতেন,
বলতেন অধ্যায়ন কর, জ্ঞানের আলোয় উদ্ভাসিত হও,
আলোর কণার মতো তা ছড়িয়ে দাও-
জ্ঞানীরা কখনও ধ্বংস হয় না,
জেনো, স্বাধীনতাপ্রিয় কোন জাতি
কোনদিন কারো কাছে পদানত হয় না।

আকাশের তারা হয়ে যদি তুমি প্রতিনিয়ত
আমাকে, এই পৃথিবীকে দেখ
তবে তোমাকে বলছি বাবা-
এখন পাখির কূজনকে আমার শোকের বিলাপ বলেই মনে হয়,
নদীরা এখন সভ্যতা বিনাশী দানবের বোতলে বন্দি,
নদীতো এখন শুধু রোদনের নাম।
বিশ্বে এখন মানবতা শব্দটি কেউ আর উচ্চারণই করে না
কারণ, মানবতা এখন ক্ষমতাধর বুশের পদতলে
চিড়ে চ্যাপ্টা হয়ে আছে।
বিশ্ব বিবেকের ধারক জাতিসংঘ এখন স্বেচ্ছাতন্দ্রায়।
চিনার আগুনে জ্বলছে কাশ্মীর
পুড়ছে পাঠানদের মুলুক আফগানিস্তান
তার আসমানভেদী পর্বতের চূড়াগুলো এখন
সমতলে মিশে যাচ্ছে,-রক্তাক্ত ফিলিস্তিন
বোমার আঘাতে ক্ষত-বিক্ষত ইরাক-
সহস্র বছরের সভ্যতা ধ্বংশস্তুপ আজ
মানবতাবাদীরা এখন বাঁদরের নাচ দেখতেই
বেশি ভালোবাসেন, স্বাধীনতা, মানবতা,সততার
কানাকড়ি মূল্য নেই এখন।

কিছুক্ষণ আগে একটা তারা খসে পড়ল পৃথিবীতে,
জ্বলতে জ্বলতে তার শেষ আলোটুকু
নিভে গেল,তাহলে ঐ তারাটিই কি আমার বাবা ছিল?

আমার বাবা (১)

আমার বাবা (২)

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.