Home শীর্ষ সংবাদ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে যানবাহনে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৭ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে যানবাহনে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৭ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে যানবাহনে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৭ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত শনিবার গভীর রাতে উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহ্যত ১টি ছোরা ও ৩টি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় রোববার দুপুরে সোনারগাঁও থানার এস আই আব্দুল হক সিকদার বাদী হয়ে সোনারগাঁও থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন ডাকাত সর্দার মো. নয়ন মিয়া, সদস্য নবীর হোসেন, বিজয়, স্বাধীন, সাইফুল ইসলাম শাওন, ওমর আলী ও রবিন।
সোনারগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) আব্দুল হক শিকদার জানান, গত শনিবার গভীর রাতে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামেনে একদল ডাকাত দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে বিভিন্ন পরিবহনে ডাকাতির প্রস্তÍতি নেয়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে ডাকাত সর্দার নয়ন, সদস্য নবীর হোসেন, বিজয়, স্বাধীন, সাইফুল ইসলাম শাওন, ওমর আলী ও রবিন নামের ৭ ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় আরো ৪-৫জন ডাকাত পালিয়ে যায়। তাদের কাছ থেকে ১ টি ছোড়া ৩ টি চাপতি উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ডাকাতদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় একাধিক ডাকাতির মামলা রয়েছে।

গ্রেফতারকৃত ডাকাত সরদার নয়ন সোনারগাঁও থানার মোগরাপাড়া ইউনিনয়নের গোহাট্রা গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে, নবীর হোসেন বন্দর উপজেলার বাগদোবাড়িয়া গ্রামের আহাম্মদ আলীর ছেলে, বিজয় সোনারগাঁও উপজেলার ছোট সাদীপুর গ্রামের জামান মিয়ার ছেলে, স্বাধীন বাগেরহাটি জেলার মুনিগঞ্জ গ্রামের জসিম শিকদারের ছেলে, সাইফুল ইসলাম শাওন পিরোজপুর গ্রামের তামিজ উল্ল্হার বাড়ির ভাড়াটিয়া মনির ড্রাইবারের ছেলে, ওমর আলী পিরোজপুর গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে ও রবিন একই গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে।
সোনারগাঁও থানার ওসি মো. মোরশেদ আলম পিপিএম জানান, গ্রেফতারকৃত ডাকাতদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তাদেরকে রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.