Home জাতীয় আগামী ২০ বছর পর বাংলাদেশে হিন্দু জনগোষ্ঠীর সংখ্যা দ্বিগুণ হওয়ার প্রত্যাশা এরশাদের

আগামী ২০ বছর পর বাংলাদেশে হিন্দু জনগোষ্ঠীর সংখ্যা দ্বিগুণ হওয়ার প্রত্যাশা এরশাদের

0

জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় গেলে সংসদের তিনশ আসনের মধ্যে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্য ৩০টি আসন সংরক্ষণ করবেন উল্লেখ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, ’৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের সময়ে হিন্দুদের আত্মত্যাগের কথা ভোলা যাবে না। তিনি প্রত্যাশা করে বলেন, আমার বিশ্বাস আগামী ২০ বছর পর বাংলাদেশে হিন্দু জনগোষ্ঠীর সংখ্যা দ্বিগুণ হবে।

এরশাদ আরো বলেন, ড. আবুল বারাকাত তার বইয়ে উল্লেখ করেছেন আগামী ২০ বছর পর বাংলাদেশে কোনো হিন্দু থাকবে না। আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি, আগামী ২০ বছর পর দেশে হিন্দুদের সংখ্যা দ্বিগুণ হবে।

গতকাল রাজধানীর গুলশান ইমানুয়েলস কনভেনসেন্টারে জন্মাষ্টমী উপলক্ষে সনাতন সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ এবং বিশিষ্ট নাগরিকদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়ের সভাপতিত্বে সোমনাথ দে’র সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের গৃহপালিত বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদ, জাপার কো- চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, আজম খান, মেজর (অব.) খালেদ আখতার, হিন্দু স¤প্রদায়ের নেতা রানা দাশ গুপ্ত, কৃষ্ণ কীর্তন দাস, নোকল চন্দ্র সাহা, তাপস পাল প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদ বলেন, আমি বুকে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ লালন করি। মুক্তিযুদ্ধের সময় হিন্দুদের আত্মত্যাগের কথা এই জাতি ভুলতে পারবে না। যখন জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় ছিল, তখন হিন্দুদের জন্য নানান উন্নয়ন কর্মকান্ড করা হয়েছে।

এসময় এইচ এম এরশাদ আক্ষেপ করে বলেন, ক্ষমতায় থাকাকালে হিন্দুরা আমাকে সহযোগিতা করেননি। কারণ, আমি রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম করেছিলাম। আমি অন্যধর্ম গুলোকেও সম্মান দিয়েছিলাম। আমার জীবনের যত কিশোর বন্ধু রয়েছে, তার সিংহভাগই হিন্দু। আমার শিক্ষা গুরুও হিন্দু।
সাবেক এই প্রেসিডেন্ট বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাপা ক্ষমতায় গেলে সংরক্ষিত ৩০টি আসন সংখ্যালঘুদের জন্য রাখা হবে। এসময় তিনি দূর্গাপূজায় হিন্দুদের ছুটি বাড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.